মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড - মতলব উত্তর, চাঁদপুর - GoArif

মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড – মতলব উত্তর, চাঁদপুর

0 Shares

মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড (ইংরেজি: Mohanpur Parjatan LTD.) বা, মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্র – মতলব উত্তর, চাঁদপুর থেকে ভ্রমণ করে আসলাম। এই স্থানটি মিনি কক্সবাজার মোহনপুর নামেও পরিচিত।

এখানে সবচেয়ে চমৎকার দৃশ্য হল, আপনি নদীর পাড়ে দাড়িয়ে সূর্যাস্ত (Sunset) দেখতে পাবেন!

আজকের ভ্রমণে আমি মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড নিয়ে বিস্তারিত বলার চেষ্টা করব। দর্শনীয় স্থান হিসেবে কেমন, দেখার মত কি কি আছে, কত টাকা প্রবেশ ফি, কিভাবে যাবেন, ভ্রমণ টিপস -এ সব কিছু নিয়ে বিস্তারিত থাকছে।

মোহনপুর ভ্রমনে রয়েছি আমি আরিফ হোসেন (GoArif) এবং আমার সাথে রয়েছে নাদিম আলমাহমুদ (দাদো)। চলুন ভ্রমণ শুরু করা যাক…

আরও: মায়াদ্বীপ ভ্রমণ – নুনেরটেক, সোনারগাঁ

মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড - GoArif
মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড

মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড ভ্রমণ


ভ্রমণ স্থানমোহনপুর পর্যটন লিমিটেড
ধরনদর্শনীয় স্থান
অবস্থানমোহনপুর, মতলব উত্তর, চাঁদপুর, বাংলাদেশ
স্থাপিত২০২০ সাল
ব্যবস্থাপনা পরিচালককাজী মো. মিজানুর রহমান
ঢাকা থেকে দূরত্ব১০৮ কিলোমিটার (সড়কপথ)
প্রবেশ মূল্য২০ টাকা
ড্রোন উড়ানো যাবেহ্যাঁ
খোলা থাকার সময়সকাল ৯টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত
হটলাইন০১৮৯৩৪৪৮০৮০

মোহনপুর ভ্রমণ প্রস্তুতি

একনজরে মোহনপুর সম্পর্কে জানলাম এবার চলেন ভ্রমণ প্রস্তুতি সম্পর্কে জানা যাক। আমার বাড়ি চাঁদপুর জেলায়। আমার বাড়ি থেকে মোহনপুর খুব একটা দূরে নয়। একসময় এখানে বন্ধুরা মিলে ঘুরতে আসতাম। নদীতে গোসল করতাম। তখন অবশ্য এতো কিছু ছিল না।

ঢাকা থেকে বেশ কিছুদিন পর বাড়ি এসেছি। আর এখানে নতুন করে পর্যটন কেন্দ্র হয়েছে তাও জানতে পেরেছি। একদিন সময় করে দুপুরে লাঞ্চ শেষে দাদো কে নিয়ে মোটরসাইকেলে করে চলে আসলাম। নিজের থানায় নতুন পর্যটন কেন্দ্র হয়েছে ভেবে ভালোই লাগছিল।

মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্র

আমরা মোটরসাইকেলে করে মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্র চলে আসলাম। এটা মোহনপুর লঞ্চঘাট এর উত্তর পাশে গড়ে উঠেছে। পূর্ব পাশে প্রধান সড়ক। পশ্চিমে নদীর পাড় ঘেষে বিশাল আয়তন নিয়ে এই পর্যটন লিমিটেড গড়ে উঠেছে।

এখানে নতুন একটি ইলিশ ভাস্কর্য বানানো হয়েছে। গাড়ি পার্কিং এর জন্য দক্ষিণ পুর্ব পাশে বিশাল জায়গা রয়েছে। গাড়ি পার্কিং ফি দিয়ে আপনাকে একটি টোকেন নিতে হবে। আবার, চলে যাবার সময় সেই টোকেন দেখিয়ে আপনাকে গাড়ি নিতে হবে। এখানে টোকেন ফি আগেই দিতে হয়।

মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্র - GoArif
গাড়ি পার্কিং

আমরা মোটরসাইকেল রেখে টোকেন নিয়ে হেটে চলে আসলাম পর্যটন লিমিটের এর প্রধান ফটকে। এদিক দিয়ে শুধু প্রবেশ করতে পারবেন কিন্তু বের হতে হবে অন্য গেইট দিয়ে।

মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্র - GoArif
প্রধান ফটক

হাতের বা’পাশেই টিকিট কাউন্টার রয়েছে। মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড এর প্রবেশ ফি জনপ্রতি ২০ টাকা। আমরা কাউন্টার থেকে টিকিট সংগ্রহ করলাম। এখন পর্যটন কেন্দ্রে প্রবেশের পালা।

মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড ভ্রমণে যা দেখলাম

টিকিট নিয়ে আমরা ভিতরে প্রবেশ করলাম। ভিতরে প্রবেশ করে প্রথমেই আপনার চোখ যাবে গরিলা ভাস্কর্যের দিকে। অনেকটা মুখ ভেংচি করা ভাব নিয়ে আপনার দিকে তাকিয়ে আছে গরিলাটা।

মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড ভ্রমণে যা দেখলাম - GoArif

তার পিছনে পর্যটক এর জন্য বিশাল বড় এক রেস্তোরা রয়েছে নাম: THE SHIP INN।

THE SHIP INN - GoArif
THE SHIP INN

এদিক দিয়ে হাতের বা’দিকে গেলে আপনি এই পর্যটন এড়িয়া থেকে বের হওয়ার গেইট পাবেন। আর হাতের ডান’দিকে গেলে মূল পর্যটন কেন্দ্রটি দেখতে পাবেন।

আমরা হেটে এগোতে থাকলাম। বেশ ভালোই পর্যটক আসে এখানে। মতলব উপজেলায় এই পর্যটন কেন্দ্রটি ছাড়া আর ১টি মাত্র কৃত্রিম পর্যটন কেন্দ্র রয়েছে জজ নগর পার্ক ও মিনি জো

এছাড়া মতলব উত্তর উপজেলায় বেশ কিছু দর্শনীয় স্থান রয়েছে হামিদ মিয়া জমিদার বাড়ি, নেদায়ে ইসলাম, কলাকান্দা মসজিদ ও মাদ্রাসা, মেঘনা-ধনাগোদা সেচ প্রকল্প ও ধনাগোদা নদী, লুধুয়া জমিদার বাড়ি, ১ গম্বুজ মসজিদ, নাউরী মন্দির ও রথ, আই সি ডি ডি আর বি, খোদাই পুকুর রহস্য ইত্যাদি।

আমরা হেটে উত্তর পাশে চলে আসলাম। নদীর ঠান্ডা সাতাস আমাদের লাগতে শুরু করেছে। বেশ চমৎকার ভাবেই সাজানো হয়েছে সব কিছু। একেবারে উত্তর পাশে সুন্দর একটি রাস্তা চলে গিয়েছে। রাস্তার মাঝানে লাইটিং করা হয়েছে।

মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড - GoArif
উত্তর পাশে সুন্দর একটি রাস্তা চলে গিয়েছে

সোজা পশ্চিম দিকে রয়েছে মূল রিভার বীচ।

মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড - GoArif

মোহনপুর রিভার বীচ

পাকা রাস্তা থেকে নিচে নামলেই বুঝতে পারবেন নিচে বালি রয়েছে। পুরো রিভার বীচ বালি আর বালিময়।

মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্র - GoArif
পুরো রিভার বীচ বালি আর বালিময়।

আমরা হেটে নদীর পারে চলে আসলাম।

মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড - GoArif
মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড

নদীর পাড় ঘেষে ছাতা চেয়ারের (​কিটকট) রয়েছে। ২ জন একসাথে বা ১ জন এর জন্য কিটকট রয়েছে। প্রতি ছাতা চেয়ারের ভাড়া ঘন্টা প্রতি ৩০ টাকা। অনেকটা কক্সবাজারের মতই।

মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড ভ্রমণে যা দেখলাম - GoArif
নদীর পাড় ঘেষে ছাতা চেয়ারের (​কিটকট) রয়েছে।

কিটকটে শুয়ে আপনি নদীর ঠান্ডা বাতাস খেতে পারবেন। এছাড়া নদীতে বয়ে চলা পালতোলা নৌকার অপরূপ দৃশ্য দেখতে পাবেন। জেলেরা কি সুন্দর করে নদিতে মাছ ধরছে তাও দেখতে পাবেন।

মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড ভ্রমণে যা দেখলাম - GoArif
কিটকটে শুয়ে আপনি নদীর ঠান্ডা বাতাস খেতে পারবেন।

স্পিডবোর্ড রাইড

মোহনপুর পর্যটন লিমিটেডে স্পিডবোর্ড রাইড এর চমৎকার ব্যবস্থা রয়েছে। আমরা ভ্রমনে গিয়ে ২ টি স্পিডবোর্ড দেখতে পেয়েছি। ২ টি স্পিডবোর্ড দিয়েই পর্যটকরা রাইড দিচ্ছে। রাইড এর এই স্থানটিতে প্রচুত ভিড় লেগে থাকে।

পর্যটন লিমিটেড এর পরিবেশ

মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড এর পরিবেশ খুবই ভালো। আমাদের দেখা মতে কোথাও কোন ময়লা আবর্জনা দেখতে পাইনি। তবে, বেশ কিছু স্থানে নির্মাণ কাজ চলছে। এছাড়া ভিতরে পুরুষ এবং মহিলাদের জন্য চমৎকার মানের আলাদা ভাবে ওয়াশরুম রয়েছে।

মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড এর রাতের ছবি - GoArif
মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড এর রাতের ছবি

দেখার মত কি কি আছে

এখানে নদীর পাড়ে মনোরম পরিবেশে সময় কাটাতে পারবেন। এছারা, শিশু এবং প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য পার্ক, ঘোড়া রাইড, স্পিডবোর্ড রাইড, নৌকা ভ্রমণ সহ বেশ কিছু রাইড রয়েছে, আরও রয়েছে, পিকনিক স্পর্ট, মিনি শিশুপার্ক ও সুইমিংপুল, অত্যাধুনিক মার্কেট।

মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড - GoArif

আপনি কিটকটে শুয়ে সূর্যাস্ত (Sunset) দেখতে পাবেন! যা আপনার ভ্রমণ কে আরও পরিতৃপ্ত করে তুলবে।

মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড - GoArif
আপনি কিটকটে শুয়ে সূর্যাস্ত (Sunset) দেখতে পাবেন!

নিরাপত্তা ব্যবস্থা

মোহনপুর পর্যটন লিমিটেডে রয়েছে চমৎকার নিরাপত্তা ব্যবস্থা। এখাণে ২৪ ঘণ্টা সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা রয়েছে। কোন ধরনের ইভটিজিং, ছিনতাই নিয়ে আপনাকে টেনশন করতে হবে না। এছাড়া পর্যটকদের জন্য প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা রয়েছে।

খাবার ব্যবস্থা

এখানে পর্যটকদের জন্য থ্রি-স্টার ও ফাইভ-স্টার মানের হোটেল, রেস্টহাউজ, ক্যান্টিন, পিকনিক স্পর্ট সহ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পালনে পাঁচ হাজার আসনের উন্মুক্ত মঞ্চ রয়েছে।

নদীর নানা প্রকারের সুস্বাদু মাছ সহ হরেক রকমের খাবার রয়েছে এখানে। খাবারের দাম তুলনামূলক কম এবং পরিবেশ অত্যন্ত ভালো।

মোহনপুর কিভাবে যাবেন

মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড ভ্রমণে কিভাবে যাবেন? ঢাকা থেকে দুই ভাবে মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড যাওয়া যায়-

নৌপথ

ঢাকা গুলিস্থান থেকে উৎসব বা বন্ধন বাসে করে চলে যাবেন নারায়ণগঞ্জ। ভাড়া নিবে ৩৫ টাকা। নারায়ণগঞ্জ লঞ্চটার্মিনালে জন প্রতি ১০ টাকা করে নেয় টার্মিনালের ভিতরে প্রবেশের জন্য।

নারায়ণগঞ্জ থেকে চাঁদপুর বা মতলব এর উদ্দেশ্যে বেশ কয়েকটি লঞ্চ ছেড়ে যায়। যে লঞ্চ গুলো মোহনপুর লঞ্চঘাট টাচ করে আপনি সে লঞ্চে উঠবেন। লঞ্চে বিলাস এর ভাড়া জনপ্রতি ৯০ টাকা। লঞ্চে ২ থেকে ২.৫ ঘন্টা সময় লাগবে মোহনপুর পৌঁছাতে।

সড়কপথ

সড়ক পথে যেতে হলে, আপনাকে ঢাকা সায়েদাবাদ থেকে কুমিল্লাগামী বাসে দাউদকান্দি যেতে হবে। ভাড়া নিবে ৬০ টাকা থেকে ২০০ টাকা পর্যন্ত। বাসে উঠার আগে ভাড়া দামাদামি করে ঠিক করে নিবেন।

দাউদকান্দি নেমে সিএনজি করে চলে আসবেন সিরারচর। ভাড়া নিবে ৫০ টাকা। সিরারচর থেকে আবার সিএনজি করে চলে আসবেন মতলব। ভাড়া নিবে ৪০ থেকে ৬০ টাকা।

এরপর মতলব থেকে সিএনজি অথবা মোটরসাইকেলে চলে আসতে পারবেন মোহনপুর। ভাড়া নিবে ৫০ থেকে ১৫০ টাকা পর্যন্ত।

পরামর্শ: আপনি লঞ্চে চলে আসতে পারেন। এটাই সবচেয়ে সহজ পথ মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড -এ আসার। তবে আপনার যদি লঞ্চ ভ্রমনে সমস্যা হয় তাহলে সড়ক পথে আসতে পারেন।

মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্র ভ্রমণ টিপস

নিচে ভ্রমণের কিছু টিপস দেয়া হল-

  1. কালবৈশাখী বা ঝড়ের দিনে মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্রে ভ্রমণ না করাই উত্তম।
  2. নদীতে নামার সময় সাবধানতা অবলম্বন করুন।
  3. নদীর গভীরে গিয়ে ছবি তোলার চেষ্টা করবেন না।
  4. নদী দিয়ে বড় লঞ্চ বা ষ্টীমার চলার সময় পাড়ে বড় বড় ঢেউ আছড়ে পরে, এসময় নদী থেকে দূরে থাকুন অথবা সাবধান থাকুন।
  5. কারও অনুমতি ছাড়া ছবি তুলবেন না বা ভিডিও ধারণ করবেন না।
  6. গরম বালুর উপর দিয়ে হাটার সময় পায়ে জুতা পরে নিন।
  7. বাচ্চাদের দিকে খেয়াল রাখুন।
  8. নদীর পানি পান করবেন না।
  9. নদীতে মলত্যাগ করবেন না।
  10. ময়লা আবর্জনা দিয়ে পরিবেশ নোংরা করবেন না।

ভ্রমণ জিজ্ঞাসা

মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড এর প্রবেশ মূল্য কত?

২০ টাকা।

মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড এর মালিক কে?

মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী মো. মিজানুর রহমান।

মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্র কবে বন্ধ থাকে?

পর্যটন কেন্দ্র প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

গাড়ি পার্কিং এর ব্যবস্থা আছে কি?

হ্যাঁ আছে।

খাওয়ার ব্যবস্থা আছে কি?

এখানে পর্যটকদের জন্য থ্রি-স্টার ও ফাইভ-স্টার মানের হোটেল, রেস্টহাউজ, ক্যান্টিন, পিকনিক স্পর্ট সহ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পালনে পাঁচ হাজার আসনের উন্মুক্ত মঞ্চ রয়েছে।


মোহনপুর ভ্রমণ ভিডিও

এবার চলুন ভ্রমণের ভিডিও দেখা যাক-

সম্ভাবনাময় পর্যটন কেন্দ্র মোহনপুর। নিচের ভিডিওটি ধারণ করেছেন মোয়াজ্জেম হোসেন।

0 Shares
GoArif.com ওয়েবসাইটের কোথাও কোন ভুল বা অসংগতি আপনার দৃষ্টিগোচর হলে তা অনুগ্রহ করে আমাকে অবহিত করুন, যেন আমি দ্রুত সংশোধন করতে পারি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

8টি মন্তব্য

Copy link